টাঙ্গাইলে মহিলার ছোড়া এসিড নিক্ষেপে ঝলসে আহত-৪; আটক-২

টাঙ্গাইলে মহিলার ছোড়া এসিড নিক্ষেপে ঝলসে আহত-৪; আটক-২

Spread the love

নিজস্ব প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে মহিলার ছোড়া এসিড নিক্ষেপে ঝলসে ৪ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বল্লা করোনেশন হাই স্কুল এন্ড কলেজ এলাকায়। এ ঘটনায় শনিবার রাতেই ওই মহিলাসহ ২ জনকে আটক করেছে কালিহাতী থানা পুলিশ।

আহতরা হলো- সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলার কান্দাপাড়া গ্রামের সুনীল মন্ডলের ছেলে সুজন মন্ডল(৫০) একই উপজেলার গোপালপুর বটতলা গ্রামের জলিল মিয়ার ছেলে জহিরুল ইসলাম(৫০), সামাদ শেখের ছেলে আহাম্মদ আলী(৪০) ও কালিহাতী উপজেলার বল্লা গ্রামের খালেক মিয়ার ছেলে খোরশেদ(৩৫)।

আটককৃতরা হলো- সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলার গোপালপুর বটতলা গ্রামের মৃত মোজাম মিয়ার মেয়ে আলেয়া বেগম(৪৫) ও কালিহাতী উপজেলার সিংগাইর দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে লুৎফর(৪২)।

মামলার বিবরণে জানাযায়, আসামী আলেয়া বেগম ও আহত সুজন মন্ডলের পূর্ব পরিচিতির অংশ হিসেবে বিরোধ চলছিল এবং বিভিন্ন সময় সুজনকে ভয়-ভীতি ও হুমকি দিয়ে আসছিল। তারই ধারাবাহিকতায় গত ৭ ডিসেম্বর বিকেলে কালিহাতী উপজেলার বল্লা করোনেশন হাই স্কুল এন্ড কলেজের সামনে রাস্তার পাশে দাড়িয়ে লুঙ্গি বিক্রি করার সময় পূর্ব শত্রুতার জেরে আসামী আলেয়া বেগম সুজন মন্ডলের গায়ে প্লাস্টিকের মগ দিয়ে এসিড নিক্ষেপ করে। এতে সুজনের মুখের বামপাশ ঝলসে বিকৃত হয়ে যায় এবং শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে যায়। ওই এসিড সুজনের পাশে থাকা সিরাজগঞ্জ জেলার আ: সামাদ শেখের ছেলে আহম্মদ আলী, একই জেলার গোপালপুর বটতলা গ্রামের আ: জলিলের ছেলে জহিরুল ইসলাম, কালিহাতী উপজেলার বল্লা গ্রামের খালেক মিয়ার ছেলে খোরশেদসহ আরো কয়েকজনের গায়ে লেগে আহত হয়। পরে সুজনের ডাক চিৎকারে বাজারের লোকজন এগিয়ে এসে আলেয়াকে আটক করে কালিহাতী থানা পুলিশকে খবর দিলে তাকে থানায় নিয়ে আসেন। জিজ্ঞাসাবাদে তার দোষ স্বীকার করে নিক্ষেপকৃত এসিড উপজেলার সিংগাইর দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে লুৎফর সরবরাহ করেন। পরে থানা পুলিশ তাকেও আটক করে।

এব্যাপারে কালিহাতী থানার ওসি হাসান আল মামুন জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়ের করে এসিড নিক্ষেপকারী আলেয়া ও এসিড সরবরাহকারী লুৎফরকে আটক করে রবিবার(৮ ডিসেম্বর) দুপুরে টাঙ্গাইল জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন




All rights reserved © Prothom Kantho
Design BY Code For Host, Inc