তিন দিনের রিমান্ড শেষে কারাগারে দৈনিক সংগ্রামের সম্পাদক

তিন দিনের রিমান্ড শেষে কারাগারে দৈনিক সংগ্রামের সম্পাদক

Spread the love

স্টাফ রিপোর্টার: তিন দিনের রিমান্ড শেষে দৈনিক সংগ্রামের সম্পাদক বর্ষিয়ান সাংবাদিক আবুল আসাদকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেফতার বয়োজ্যেষ্ঠ এই সম্পাদককে গতকাল বুধবার দুপুরে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা।

অন্যদিকে সম্পাদক আবুল আসাদের আইনজীবীরা তার জামিন আবেদন করেন। আদালতে শুনানীতে এডভোকেট আব্দুর রাজ্জাক ও এডভোকেট শিশির মোহাম্মদ মনির বলেন, যে ধারায় দেশের প্রাচীনতম পত্রিকা দৈনিক সংগ্রাম এর সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে এই ধারাটি প্রিন্টিং পত্রিকার জন্য প্রযোজ্য নয়। দণ্ড বিধির ১২৪-ক, ধারাটি ইলিকট্রনিক মিডিয়ার জন্য হলেও এই ধারায় দৈনিক সংগ্রাম সম্পাদককে পুলিশ গ্রেফতার করতে পারে না। আইনজীবীরা বলেন, সংগ্রামের অফিসে হামলা ও ভাঙচুর করে কয়েক কোটি টাকার ক্ষতি করা হয়েছে। অথচ মামলাও করা হয়েছে সংগ্রামের বিরুদ্ধে, যা হতে পারে না। অন্যদিকে ‘শহীদ’ শব্দটির ব্যাপারে আইনজীবীরা আদালতে বলেন, এই শব্দটি কোথায় ব্যবহার হবে আর কোথায় হবে না এ বিষয়ে কোনো নীতিমালা নেই।

আইনজীবীরা আদালতকে আরও বলেন, আবুল আসাদ একজন বয়োজ্যেষ্ঠ সাংবাদিক। তিনি একজন লেখক-কলামিস্ট। তিনি জাতীয় প্রেস ক্লাবের আজীবন সদস্য। আগে থেকেই তিনি গুরুতর অসুস্থ। তিনি ব্লাড ক্যান্সার ও হাই প্রেসারের রোগী। তার নিয়মিত ওষুধ সেবন করতে হয়। কারাগারে থাকলে তার জীবন বিপন্ন হওয়ার সম্ভাবনা আছে। আদালতে তার শারীরিক অবস্থার বর্ণনা দেয়ার পর জামিন না দেয়ায় আইনজীবীরা হতাশা ব্যক্ত করেন। আইনজীবীরা তার জামিনের জন্য উচ্চ আদালতে যাবেন বলে জানান।

শুনানীতে দুই আইনজীবীর সঙ্গে এডভোকেট আজিম উদ্দিন শিশির, মো: ফয়জুল্লাহ, গোলাম কিবরিয়া, সাইফুদ্দিন ফিরোজ, সাইফুল ইসলামসহ আরও ২০/২৫ জন আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম বাকি বিল্লাহ তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) রাতে রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলায় দৈনিক সংগ্রাম এর সম্পাদক আবুল আসাদকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তাকে তিন দিনের রিমান্ডে আনা হয়। এসময় তিনি হাতিরঝিল থানা হেফাজতে ছিলেন।

এর আগে গত ১২ ডিসেম্বর মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর হওয়া জামায়াত নেতা আবদুল কাদের মোল্লাকে ‘শহীদ’ উল্লেখ করে প্রতিবেদন প্রকাশ করে দৈনিক সংগ্রাম। এর প্রতিবাদে পরদিন সন্ধ্যায় রাজধানীর মগবাজারে পত্রিকা অফিসের কার্যালয়ে ঢুকে ব্যাপক ভাঙচুর করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নামের একটি সংগঠন। তারা লাঠিসোটা নিয়ে অফিসে ঢুকে প্রতিটি কক্ষে ঢুকে অফিসের ৫৮টি কম্পিউটার, ল্যাপটপ, চেয়ার-টেবিল, দরজা, জানালা, সেন্ট্রাল সার্ভার, টেলিভিশন, আলমারি, ফ্যাক্স মেশিন, এসি, সোফাসহ আসবাবপত্র ভাঙচুর করে ব্যাপক ক্ষতি করে। তারা প্রায় এক ঘন্টা ধরে পত্রিকা অফিসের ভেতরে তান্ডব চালায়। এসময় গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র ও কয়েকজনের মোবাইল ফোন, মানিব্যাগ নিয়ে যায়। এরপর তারা সম্পাদককে লাঞ্ছিত করে ধরে অফিসের দ্বিতীয় তলা থেকে নিচে নামায়। পরে পুলিশ তাকে হেফাজতে নেয়।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন




All rights reserved © Prothom Kantho
Design BY Code For Host, Inc