প্রেম করে বিয়ে, স্ত্রীকে ঘরে তুলেই ব্যাংক কর্মকর্তার আত্মহত্যা

প্রেম করে বিয়ে, স্ত্রীকে ঘরে তুলেই ব্যাংক কর্মকর্তার আত্মহত্যা

প্রথম কণ্ঠ ডেস্ক: প্রেম করে বিয়ের দুই বছর পর স্ত্রীকে ঘরে তুলেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করলেন উসমান গনি (৩১) নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তা।

শনিবার চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার দক্ষিণভূর্ষি ইউনিয়নে নিজ গ্রামের বাড়ির রান্নাঘর থেকে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

উসমান পশ্চিম ডেঙ্গাপাড়া গ্রামের আয়ুব আলীর ছেলে এবং ইসলামী ব্যাংক টেকনাফ শাখার কর্মকর্তা।

তার লাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে নগরের চৈতন্যগলিতে দাফন করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে রান্নাঘরের দরজা বন্ধ পান বাড়ির লোকজন। এসময় উসমানের মা ডাকাডাকি করে

সাড়া না পেয়ে দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকেন। পরে সিলিংয়ের সঙ্গে রশিতে ফাঁস লাগানো অবস্থায় উসমানকে দেখতে পান।

এ সময় তাকে উদ্ধার করে পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।

নিহতের স্ত্রী শাকিলা আকতার জানান, ২০১৬ সালে উসমানের সঙ্গে তার প্রেমের সর্ম্পক গড়ে ওঠে। ২০১৮ সালে তারা চট্টগ্রাম সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেটের কাছে হলফনামামূলে বিয়ে করেন। এরপর থেকে তারা টেকনাফে সংসার শুরু করেন।

তিনি আরও জানান, উসমানের পরিবার প্রথমে তাদের সম্পর্ক মেনে না নিলেও শুক্রবার তিনি তাদের বাড়িতে গেলে তারা তাকে ঘরে তুলে নেয়। এসময় স্থানীয় ইউপি মেম্বার আহমদ নুর সাগরসহ গণ্যমান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

কিন্তু সকালে তিনি ঘুম থেকে উঠে জানতে পারেন রান্না ঘরের সিলিংয়ের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে উসমান।

পটিয়া থানার উপ-পরিদর্শক রোকন উদ্দিন বলেন, উসমান দুই বছর আগে বিয়ে করেছিলেন। কিন্ত পরিবার তা জানত না। শুক্রবার স্ত্রীকে ঘরে তোলার পরদিন তিনি আত্মহত্যা করেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন




All rights reserved © Prothom Kantho
Design BY Code For Host, Inc