ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না,ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয় : কাদের

ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না,ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয় : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রথমকণ্ঠ :

মুজিববর্ষে ক্ষমতায় দাপট না দেখাতে নেতাকর্মীদের প্রতি সতর্ক করে দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেছেন, ‘মুজিববর্ষে ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না। আমরা ক্ষমতায় আছি, ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়, যতটা সম্ভব বিনয়ী থাকবেন। মানুষের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে তুলবেন।’

শুক্রবার(০৬ মার্চ) বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক, সহযোগী সংগঠনের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, মেয়র ও কাউন্সিলরবৃন্দ এবং মহানগরের অন্তর্গত দলীয় সংসদ সদস্যদের এক যৌথসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনাদের আবারও অনুরোধ করবো আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে আপনারা যেকোনো পরিস্থিতিতে মাথা ঠান্ডা করে, মুজিববর্ষের ভাবগাম্ভীর্য বজায় রাখবেন। আপনারা বঙ্গবন্ধুর যে বিনয়ের শিক্ষা, ধৈর্যের শিক্ষা, বঙ্গবন্ধু যে ত্যাগের শিক্ষা, সেই শিক্ষা থেকে আপনাদের শিক্ষা নিতে হবে।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা কোনো অবস্থায় মুজিববর্ষ উৎযাপনের নামে এলাকায় এমন কোনো আচরণ কারো সঙ্গে করবেন না, মানুষ যাতে আমাদের নেতাকর্মীদের থেকে বিরূপ আচরণ না পায়। কোনো প্রকার হয়রানি শিকার না হয়, কোনো মানুষ কষ্ট না পায়। এটা আপনাদের খেয়াল রাখতে হবে। প্রত্যেকটি প্রোগ্রাম সুন্দরভাবে করবেন। নিজেরা অর্থ সংগ্রহ করে অনুষ্ঠানের আয়োজন করবেন।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, মুজিববর্ষের কোনো অনুষ্ঠান নিয়ে কেউ যাতে চাঁদাবাজির দোকান না খোলে। চাঁদাবাজি করে এই অনুষ্ঠান যাতে কেউ না করে। ঘরে ঘরে গিয়ে মুজিববর্ষ করতে হবে, চাঁদা দিতে এত টাকা হবে ধার্য করেন, অমুক দোকানদারকে এত দিতে হবে, অমুক ব্যবসায়িকে অত দিতে হবে, অমুক বাড়িওয়ালাকে অত দিতে হবে। এসব বাড়াবাড়ি কোনো অবস্থায় সহ্য করা হবে না। আমাদের পার্টির পক্ষ থেকে নেত্রীর পক্ষ থেকে পরিমিতিবোধের পরকাস্টা প্রদর্শনের জন্য আমি আহ্বান করছি।’

মুজিববর্ষে আত্মপ্রচার করা যাবে না জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘পোস্টার, ব্যানার, বিলবোর্ডে করতে কোনো আপত্তি নেই। তবে পোস্টার, ব্যানার, বিলবোর্ড আত্মপ্রচারের মাধ্যম না হয়। মুজিববর্ষে বঙ্গবন্ধুকে প্রদর্শন করতে গিয়ে আত্মপ্রদর্শনের না হয়। পোস্টারে নাম দিতে পারেন। নিজেদের ছবি দেবেন না। কারো ছবি যাতে আমরা বিলবোর্ড, পোস্টারে না দেখি। এটা আমরা কঠোরভাবে মনিটর করবো।’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।

প্রথমকণ্ঠ/এস এম

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন




All rights reserved © Prothom Kantho
Design BY Code For Host, Inc