টাঙ্গাইলে করোনা আতঙ্কে ২০১ গম্বুজ মসজিদে জুমআর নামাজ স্থগিত

টাঙ্গাইলে করোনা আতঙ্কে ২০১ গম্বুজ মসজিদে জুমআর নামাজ স্থগিত

প্রথমকণ্ঠ : করোনা ভাইরাস আতঙ্কে টাঙ্গাইলের গোপালপুরে ঐতিহ্যবাহী ২০১ গম্বুজ মসজিদে শুক্রবারের জুমআর নামাজ স্থগিত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার মসজিদটির প্রতিষ্ঠাতা বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ রফিকুল ইসলাম এ স্বগিতাদেশের সিদ্ধান্ত নেন।

তিনি বলেন, বিশ্বজুড়ে মহামারি করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। ইতমধ্যে বাংলাদেশে এ রোগ সনাক্ত হওয়ার পর বুধবার এ রোগে একজনের মৃত্যুও হয়েছে। জেলার গোপালপুরের ২০১ গম্বুজ মসজিদে আগত হাজার হাজার দর্শনার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য এ মসজিদে সাময়িকভাবে জুমার নামাজ স্থগিত করা হয়েছে। দর্শনার্থী ও মুসুল্লীদের সাময়িক এ অসুবিধার জন্য তিনি আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। সেইসাথে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তিনি পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানানোর আশ্বাস দেন।

প্রসঙ্গত, এই মসজিদটি টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর উপজেলার নগদা শিমলা ইউনিয়নের দক্ষিণ পাথালিয়া গ্রামে নির্মিত হচ্ছে। বিশ্বের সর্বোচ্চ সংখ্যক গম্বুজ এবং দ্বিতীয় উচ্চতম মিনার বিশিষ্ট মসজিদ এটি। ২০১টি গম্বুজ ও ৯টি সু-উচ্চ মিনার দিয়ে সজ্জিত একটি পূর্ণাঙ্গ মসজিদ কমপ্লেক্স হিসেবে এই মসজিদের নকশা করা হয়েছে। মসজিদটির নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে। মসজিদের ছাদে ৮১ ফুট উচ্চতার একটি গম্বুজ রয়েছে। এই বড় গম্বুজের চারপাশে ছোট ছোট গম্বুজ রয়েছে ২০০টি। এদের প্রত্যেকের উচ্চতা ১৭ ফুট। মূল মসজিদের চার কোণায় রয়েছে চারটি মিনার। এদের প্রত্যেকটির উচ্চতা ১০১ ফুট। পাশাপাশি আরও চারটি মিনার রয়েছে ৮১ ফুট উচ্চতার। ১৪৪ ফুট দৈর্ঘ্য ও ১৪৪ ফুট প্রস্থের দ্বিতল এই মসজিদে এক সাথে প্রায় ১৫ হাজার মুসুল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন। মসজিদের ভিতরে চার দেয়ালের টাইলসে অঙ্কিত রয়েছে পূর্ণ পবিত্র কুরআন শরিফ। যে কেউ যেকোন সময় মসজিদের দেয়ালে অঙ্কিত কুরআন শরিফ পড়তে পারবেন। মসজিদের প্রধান ফটক নির্মাণে ব্যবহার করা হচ্ছে ৫০ মণ পিতল। আজান প্রচারের জন্য মসজিদে সবচেয়ে উঁচু মিনার নির্মাণ করা হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন




All rights reserved © Prothom Kantho
Design BY Code For Host, Inc