‘বাসাইল সংবাদ’-এর সম্পাদক এনায়েত করিম বিজয় উপহার নিয়ে হাজির

‘বাসাইল সংবাদ’-এর সম্পাদক এনায়েত করিম বিজয় উপহার নিয়ে হাজির

Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদক,প্রথমকণ্ঠ  : প্রায় এক বছর আগে স্বামীকে হারিয়েছেন শাহীনুর বেগম। স্বামী ছিলেন পেশায় ভ্যানচালক। তার উপার্জনের টাকা দিয়েই চলছিল ৩ ছেলে-মেয়েসহ ৫ সদস্যের সংসার। তার বড় মেয়েটির বয়স ১০ বছর। এখন তার উপার্জনক্ষম কোন ব্যক্তি না থাকায় শাহীনুর বেগম ভিক্ষাবৃত্তি করে ৩ শিশু ছেলে-মেয়েকে নিয়ে কোনভাবে সংসার চালাচ্ছিলেন। কিন্তু বর্তমানে করোনাভাইরাসের কারণে ভিক্ষাবৃত্তি করাও বন্ধ হয়ে যায় তার। ভিক্ষাবৃত্তি বন্ধ হওয়ায় তিনি শিশু সন্তানদের নিয়ে পড়েছেন চরম বিপাকে। ঘরে খাবার নেই। এমতাবস্থায় তিনি শিশু সন্তানদের নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

তার স্বামীর বাড়ি কুষ্টিয়া জেলায়। তার স্বামী রুস্তম আলী মারা যাওয়ার পর শাহীনুর বেগম টাঙ্গাইলের বাসাইল পৌরসভার বন্দেভাটপাড়া এলাকায় অন্যের জমিতে অস্থায়ী কুঁড়ে ঘর তৈরি করে কোনভাবে জীবনযাপন করছেন। ছেলে-মেয়েকে নিয়ে কুঁড়ে ঘরে থাকা এই ঘরটিই তার অট্টালিকা। এই অট্টালিকায় থাকা অসহায় শাহীনুর আজও সরকারি কোনও অনুদান পায়নি। এই অট্টালিকায় থাকা অসহায় শাহীনুর বেগমই যদি সরকারের খাদ্য সহায়তা না পায় তাহলে পাচ্ছে কে? এমনই প্রশ্ন ওই এলাকার স্থানীয় সচেতন মহলের। শাহীনুর বেগমের অসয়াত্বের খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) বিকেলে ‘বাসাইল সংবাদ ২৪ ডটকম’-এর সম্পাদক এনায়েত করিম বিজয় উপহার নিয়ে হাজির হন তার অস্থায়ী কুঁড়ে ঘরে। উপহার হিসেবে খাদ্যসামগ্রী দেখে তিনিসহ তার শিশু সন্তানরা এগিয়ে আসে। উপহারটি তুলে দেয়া হয় শাহীনুর বেগমের হাতে। ‘বাসাইল সংবাদ ২৪ ডটকম’-এর সম্পাদক এনায়েত করিম বিজয়ের সাথে এসময় সাংবাদিক আব্দুল লতিফ উপস্থিত ছিলেন।

এই প্রথম উপহার পেয়ে তিনিসহ তার শিশু সন্তানরা অনেক খুশি হন। শাহীনুর বেগম আক্ষেপেরস্বরে বলেন, ‘ভিক্ষা করে শিশু ছেলে-মেয়েদের নিয়ে কোনভাবে সংসার চালাচ্ছিলাম। কিন্তু এখন করোনাভাইরাসের কারণে সেটিও বন্ধ হয়ে গেছে। ঘরে খাবার নেই। সন্তানদের নিয়ে অনেক কষ্টে দিন কাটাচ্ছি। আমিই যদি সরকারের খাদ্য সহায়তা না পাই তাহলে পাবে কে? এমনই প্রশ্ন তার।

প্রথমকণ্ঠ / এস এম জাকির হোসেন

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন




All rights reserved © Prothom Kantho
Design BY Code For Host, Inc