যমুনায় নৌকা ডুবি, ৩দিনপর এক জনের মরদেহ উদ্ধার

যমুনায় নৌকা ডুবি, ৩দিনপর এক জনের মরদেহ উদ্ধার

টাঙ্গাইল,প্রতিনিধি : যমুনা নদীতে পিকনিকের নৌকা ডুবে টাঙ্গাইলের গোপালপুরে ৫ ব্যক্তি নিখোঁজ হওয়ার তিন দিনপর মারুফ হাসান (২৬) নামে এক যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টার দিকে সিরাগঞ্জের শাহজাদপুর থানা এলাকার বানচিয়া নামক নৌকাঘাট থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সে টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার নগদাশিমলা ইউনিয়নের বাইশকাইল পূর্বপাড়া গ্রামের সাত্তার মন্ডলের ছেলে।

শাহজাদপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আতাউর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান- শনিবার সকাল ১০টার দিকে শাহজাদপুর এলাকায় স্থানীয়রা অর্ধগলিত একটি মরদেহ ভাসমান অবস্থায় দেখতে পায়। পরে থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এসময় মরদেহের প্যান্টের পকেটে বন্ধ থাকা একটি মোবাইল ফোন পায়। পরে সেই মোবাইলের সিমকাড খুলে অন্য একটি মোবাইলে তুলে নাম্বার সংগ্রহ করে মরদেহের স্বজনদের খবর দেওয়া হয়। পরে স্বজনরা শাহজাতপুর থানা থেকে আইনি প্রক্রিয়া শেষে বিকালে মরদেহটি নিজ বাড়ীতে নিয়ে যান।

প্রসঙ্গত প্রকাশ, গত বুধবার বিকাল ৫টার দিকে সিরাজগঞ্জের চায়না ঘাটের অদূরে পিকনিকের নৌকা ডুবে মারুফসহ ৫জন নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা ঘটে। নিখোঁজ বাকি ৪ জনের কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। তারা হলেন- গোপালপুর উপজেলার নগদা শিমলা ইউনিয়নের বাইশকাইল পূর্বপাড়া গ্রামের আ. রশিদের ছেলে হাসিনুর রহমান (৩০), আবুল হোসেনের ছেলে মিজান (২৮), সোহরাব হোসেনের ছেলে শরিফ (১৭) ও কিতাব আলীর ছেলে শাহাদত (১৭)।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ঈদ উপলক্ষে ওই গ্রামের ২৭জন মিলে নিজেদের মধ্যে চাঁদা তুলে বুধবার সকালে একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকায় পিকনিকের উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধুসেতু পূর্বপাড়ে যায়। সেখানে দুপুরের খাবার শেষে গোপালপুরে ফেরার পথে বিকাল পাঁচটার দিকে সিরাজগঞ্জের চায়না ঘাটের অদূরে প্রবল স্রোতে আরোহীসহ নৌকাটি ডুবে যায়। এতে পাঁচজন নিখোঁজ হয়। বাকিরা সাঁতার কেটে নিরাপদ স্থানে চলে যায়।

প্রথমকণ্ঠ / এস এম

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন




All rights reserved © Prothom Kantho
Design BY Code For Host, Inc