শেষ মুহূর্তেও ট্রাম্পের নতুন নিষেধাজ্ঞা ইরানে

শেষ মুহূর্তেও ট্রাম্পের নতুন নিষেধাজ্ঞা ইরানে

Spread the love
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আর মাত্র অল্প কিছুদিন হাতে আছে। তারপরেই যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণ করবেন নব-নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সে হিসেবে ট্রাম্পের হাতে এক সপ্তাহও সময় নেই। এর মধ্যেই বিদায় নেয়ার মাত্র এক সপ্তাহ আগে এই মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রশাসন ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। আলজাজিরা।

গত সপ্তাহে দেশটির পার্লামেন্ট ভবনে হামলার পর থেকেই পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আলোচনা সমালোচনা হচ্ছে। ক্ষমতা ছাড়ার আগে একের পর এক বিতর্কিত ঘটনার কারণে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে আছেন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত বুধবার ইরানের দুটি ফাউন্ডেশন এবং তাদের সহযোগী প্রতিষ্ঠানের ওপর এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। মার্কিন প্রশাসন দাবি করছে, এই দুটি প্রতিষ্ঠান ইরানের অর্থনীতির বৃহৎ অংশের নিয়ন্ত্রণ করে থাকে।

মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় ইরানের যে দুটি ফাউন্ডেশনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে তার একটি হচ্ছে- ইসলামি বিপ্লবের মহান নেতা ইমাম খোমেনীর নির্দেশ বাস্তবায়নকারী সংস্থা এবং অন্যটি হচ্ছে আস্তান কুদস রাজাভি। এই সংস্থাটি ইমাম রেজার (আ.) মাযার ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করে থাকে। ইমাম রেজা হচ্ছেন শিয়া মুসলমানদের ৮ম ইমাম।

নতুন নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা ফাউন্ডেশন দুটির নেতা এবং তাদের সহযোগীদের সম্পদ জব্দ করা হবে এবং যারা এসব ফাউন্ডেশনের সঙ্গে লেনদেন করবে তাদের বিরুদ্ধেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

এদিকে ট্রাম্প প্রশাসনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, ইরান হচ্ছে আল কায়েদার নতুন ঘাঁটি। ওয়াশিংটন ডিসি থেকে ইরানের বিরুদ্ধে এমন বক্তব্য দিয়েছেন তিনি। যদিও এ বিষয়ে তিনি কোনো প্রমাণ দেখাতে পারেননি। অন্যদিকে তার এ ধরনের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে ইরান। শেষ সময়ে ট্রাম্প ইরানের ওপর কঠোর কোন হামলা চলাতে পারেন বলেও আগে ধারণা করা হচ্ছিলো। ফলে পম্পেও এমন বক্তব্যে নতুন করে উত্তেজনা ও শঙ্কা তৈরী হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন




All rights reserved © Prothom Kantho
Design BY Code For Host, Inc